বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:০৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
শিরোনাম :
থার্টি ফার্স্ট নাইট ঈমান বিধ্বংসী বিজাতীয় সংস্কৃতি করোনা ফ্রন্ট লাইনারকে সুস্থ করে বাড়ী পাঠালো বিডি ফাইটার্স করোনা প্রাদুর্ভাবে কাজ করবে ‘টিম বিডি ফাইটার্স’ শিগগিরই ঢাকায় আসছেন এরদোয়ান। নারীর অধিকার ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় আজীবন কাজ করেছেন আল্লামা আহমদ শফী রহ. ফেরত দেওয়া হবেনা রেজিস্ট্রেশনের অর্থ এবার নিষিদ্ধ হলো টিকটক মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ,করলো হুজুর। এইচএসসি পরীক্ষার তারিখ নিয়ে যা বললেন এবার ছেলের বউকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার জেলখানায় লেখাশোনা করতে চায় মিন্নি মসজিদে বিস্ফোরণ: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৬ ইউএনও’র চিকিৎসার সবরকম ব্যবস্থা নেয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সৌদি আরবে এখনও সচল হযরত ওসমানের (রা.) ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্মার্টফোন স্লো হলে কি করণীয়
মাস্ক ব্যবহার না করায় যে শাস্তি পেতে হচ্ছে

মাস্ক ব্যবহার না করায় যে শাস্তি পেতে হচ্ছে

মাস্ক ব্যবহার না করায় যে শাস্তি পেতে হচ্ছে

সমকালীন ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়ায় কেউ যদি মাস্ক বা স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ব্যবহার না করে তাদের জরিমানা ও শাস্তি দেয়ার নতুন নিয়ম করা হয়েছে।

মাস্ক বা স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ব্যবহার না করার শাস্তি হিসেবে উন্মুক্ত কফিনের ভেতরে এক থেকে ১০০ পর্যন্ত গণনা করতে দেয়া হবে। কমপক্ষে এক মিনিট তাদের অন্যায় কাজ নিয়ে অনুশোচনা করতে বলা হবে।

জাকার্তার এক কর্মকর্তা জানান, করোনায় প্রতিদিন বিশ্বে বহু মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। এতেও যদি মানুষ সচেতন না হয় তাহলে বিষয়টা খুবই দুঃখজনক।

বিবিসি জানিয়েছে, মাস্কের প্রতি মানুষের অনীহার এ সমস্যা নিরসনে জাকার্তার পূর্বাঞ্চলীয় কালিসারি এলাকার কর্তৃপক্ষ কফিনে শোয়ানোর অভিনব কৌশলটি নিয়েছে।

ইস্ট জাকার্তা পাবলিক অর্ডিনেন্স এজেন্সির প্রধান বুধি নোভিয়ান সাংবাদিকদের বলেন, তারা আসলে বোঝাতে চাইছেন যে করোনায় সংক্রমিত হলে মৃত্যুঝুঁকি স্বাভাবিক কিছু নয়। তবে সাজা দেয়ার অভিনব কায়দাটি নিয়ে বিতর্কও সৃষ্টি হয়েছে।

কারণ, ইন্দোনেশিয়ায় প্রচলিত আইনে এ ধরনের কোনো সাজার উল্লেখ নেই। তাই গণহারে এই সাজা না দিয়ে প্রচলতি আইনানুসারে জরিমানা করতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন বুধি নোভিয়ান।

সংবাদটি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

হোমমেড দেশী রসুনের আচার

অনেকের কাছে রসুনের ঘ্রাণ ভালো লাগে না। তাই শুধু রসুন খেতে পারেন না। তারা রসুনের আচার খেতে পারেন। রসুনের আচারে ভিন্ন রকম একটা ঘ্রাণ থাকায় যেকেউ অনায়েসে মজা করে খেতে পারবেন।




© All rights reserved © 2019-2020.somokalin24.com
Desing & Developed BY NewsRush